ঢাকাসোমবার , ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নওগাঁয় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন মামলায় ইউসিবি’র অফিসার কারাগারে

আজকের বিনোদন
ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২৪ ৩:৫৭ অপরাহ্ণ । ২৮ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, নওগাঁ প্রতিনিধি:
নওগাঁয় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন মামলায় জামিন না-মঞ্জুর করে ইউসিবি’র ক্যাশ অফিসার সিরাজুস সালাহীন (৩০) কে কারাগারে পাঠিয়েছে বিজ্ঞ আদালত। সোমবার দুপুরে নওগাঁর অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এর বিচারক মোঃ ইমতিয়াজ আহমেদ এ রায় প্রদান করেন।
সিরাজুস সালাহীন নওগাঁ জেলা সদর উপজেলার করনোশেন মহল্লার আসাদুল হকের ছেলে। সিরাজুস ইউনাইটেড কর্মাশিয়াল ব্যাংক (ইউসিবি) পিএলসিতে বর্তমানে সিলেট শাখায় সিলেট ক্যাশ অফিসার হিসেবে কর্মরত।
মামলার বাদী হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সদরের জৈনক এক ব্যক্তির মেয়ে এবং সিরাজুস সালাহীন এর স্ত্রী। মামলার বাদী বর্তমানে বাবার সাথে ঢাকার একটি আবাসিক এলাকায় বসবাস করেন।
মামলা সুত্রে জানা গেছে, সিরাজুস সালাহীন এর সাথে মামলার বাদী (ভিকটিম) এর বিয়ে হয় ২১ ডিসেম্বর ২২ ইং সালে। বিয়ের পরের মাস জানুয়ারিতে রাজশাহীতে চাকুরীরত (কর্মরত) থাকার সুবাদে ভাড়া বাসাতে স্ত্রীকে নিয়ে সিরাজুস বসবাস শুরু করেন। এরপর যৌতুক হিসেবে স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, টিভি, এসি সহ অন্যান্য জিনিস-পত্র আনতে চাপ দেয়ার পাশাপাশি মানসিক ও শারীরিক ভাবে নির্যাতন করতে থাকে। স্ত্রী বাবার বাড়ি থেকে যৌতুক হিসেবে না আনতে মত প্রকাশ করলে গত বছরের ৩০ জুন মারপিট করে স্ত্রীকে ঢাকায় পাঠিয়ে দেয় স্বামী সিরাজুস। এরপর ২ জুলাই ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেন ভিকটিম স্ত্রী। পরবর্তীতে স্বামী সিরাজুস পারিবারিক ভাবে বিষয়টি মিটমাট করে পুনরায় ঘর সংসার শুরু করেন। এমতাবস্তায় গত আগস্ট মাসে রাজশাহীর ব্যাংক থেকে নওগাঁতে বদলী হয়ে আসেন তিনি। নওগাঁতে এসে আবারও যৌতুক হিসেবে মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, টিভি, এসি সহ অন্যান্য জিনিস-পত্র আনতে শারীরিক সহ বিভিন্ন ভাবে নির্যাতন শুরু করেন স্ত্রীর উপর। গত ২৩ নভেম্বর এক পর্যায়ে ব্যাপক নির্যাতন সহ চাকু দিয়ে আঘাত করেন স্ত্রীকে। এসময় রক্তাক্ত যখম হোন স্ত্রী। এমতাবস্তায় বাড়ি থেকে স্ত্রীকে বের করে দেন স্বামী সিরাজুস সালাহীন। এরপর এক আত্বীয়ের বাড়িতে অবস্থান নেন। পরবর্তীতে আত্বীয়-স্বজনের সহযোগিতায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়ে দু’ দিন চিকিৎসা গ্রহণ শেষে গত বছরের ২৭ নভেম্বর নওগাঁ সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে স্বামীকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন স্ত্রী। বাদী স্ত্রীর সাথে সমঝোতা করবে মর্মে উচ্চ আদালত থেকে ১১ ডিসেম্বর ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন পান সিরাজুস সালাহীন। এই সময়ের মধ্যে বাদীর সাথে সমঝোতা (আপোস) না করে নারী ও শিশু দমন ট্রাইবিুনাল নওগাঁ-১ এ আবারো আগাম জামিনের আবেদন করলে ২৫ জানুয়ারি থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত আবারো জামিন পান। এমতাবস্তায় তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা তুলে নেয়ার জন্য চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারী ঢাকায় গিয়ে তার স্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেন স্বামী সিরাজুস সালাহীন। হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগে পরদিন স্বামী সিরাজুস সালাহীনের বিরুদ্ধে ঢাকার ভাটারা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন স্ত্রী।
ভিকটিম এর বাবা সংবাদকর্মীদের জানান, যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী নির্যাতনকারীর বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আইনানুগ ব্যবস্থা পাবেন বলে আশা করেন। এছাড়া ব্যাংকের কর্তৃপক্ষের কাছে তার বিরুদ্ধে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবিও জানান তিনি।
বাদীর পক্ষে আইনজীবী এসএম মূর্তেজা মাহাতাব উদ্দিন জানান, আজ সোমবার মামলার অস্থায়ী জামিন শুনানির নির্ধারিত দিনে বিজ্ঞ আদালতে আবারও জামিন আবেদন করেন সিরাজুস সালাহীন। সিরাজুস সালাহীনের জামিন না মঞ্জুর করে বিজ্ঞ আদালেতের বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।
তবে এ বিষয়ে বিবাদী সিরাজুস সালাহীনের আইনজীবী সহ পরিবারের কারো সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব না হওয়ায় কোন বক্তব্য নেওয়া হয়নি।