ঢাকাসোমবার , ২৫ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

ফের টেকনাফ শামলাপুর হতে ৫৭ ড্রাম অকেটন উদ্ধার আটক ৩

আজকের বিনোদন
মার্চ ২৫, ২০২৪ ৩:৫৬ অপরাহ্ণ । ৭ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

মুহাম্মদ জুবাইর, টেকনাফ:
চোরাকারবারী সিন্ডিকেটের সদস্যরা সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিন রাতেই দেদারছে পাচার করছে বিভিন্ন চোরাইনপণ্য। ফলে অরক্ষিত হয়ে পড়েছে সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট। এদিকে স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, এক শ্রেনীর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে আঁতাত করে সীমান্ত দিয়ে চোরাইপণ্য পাচার করছে চোরাকারবারীরা।
সীমান্ত এলাকার একাধিক বাসিন্দাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, টেকনাফ উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে মিয়ানমারে যাচ্ছে অকটেন, ভোজ্য তৈল ও বিভিন্ন প্রকার নিত্যপণ্য, ইংরেজি পত্রিকা, মেডিসিন, সার, ডিজেল, অবৈধ মোবাইল সিম-কার্ড-মেমোরি, মোটর সাইকেল, সিমেন্ট বিভিন্ন যন্ত্রাংশের পার্টসসহ নানা ধরনের পণ্য।
আর মিয়ানমার থেকে আসছে ক্রিস্টাল মেথ আইস, ইয়াবা, আন্দামান গোল্ড, মাদক জাতীয় দ্রব্য, সুপারি, চামড়া, মাথাকাটা চিংড়িসহ হরেক রকমের নিষিদ্ধ পণ্য।
সীমান্তের যে সব পয়েন্টদিয়ে চোরাইপণ্য পাচার হয়। স্থানীয়দের সাথে আলাপকালে যে সব পয়েন্টের নাম জানা যায়, সে গুলো হচ্ছে টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপ জালিয়াপাড়া, পশ্চিমপাড়া নৌঘাট, ঘোলার চর, সাবরাংয়ের খুরের মুখ, হাঁদুরছড়া, মুন্ডার ডেইল, নয়াপাড়া, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মৌলভীপাড়া, নাজিরপাড়া, খোনকার পাড়া, মহেষখালিয়া পাড়া,তুলাতলী, লম্বরী, হাবিরছড়া, রাজারছড়া, কেরুনতলী, বরইতলী, স্থলবন্দরের ২নং গেইট এবং বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালিয়াপাড়া, কচ্চপিয়া, বড়ডেইল, হাজমপাড়া, শীলখালি ও শামলাপুর, টেকনাফ পৌরসভার  জালিয়াপাড়া, কায়ুকখালী, নাইট্যংপাড়া, হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া, জাদিমুরা, মুচনি, লেদা, আলীখালী রাস্তার মাথা, এএইচকে আনোয়ার প্রজেক্টের দু’পাশ, চৌধুরীপাড়া, নাটমুরাপাড়া, ফুলের ডেইল, কাস্টমস ঘাট, আড়াই নং সুইচ গেইট, ওয়াব্রাং ট্রানজিটঘাট, হোয়াইক্যংয়ের নাছরপাড়া, নয়াবাজার, ঝিমংখালী, মিনাবাজার, কাঞ্জনপাড়া, উনচিংপ্রাং, লম্বাবিল, হোয়াইক্যং, কাটাখালী পয়েন্ট দিয়ে প্রতি রাতেই বসছে চোরাই পণ্যের হাট।
ফের চোরাইপথে পাচারের জন্য টেকনাফ বাহারছড়া উত্তর শীলখালী বসত-বাড়িতে মওজুদকৃত ৫৭জারিকেন অকটেন সহ ৩ পাচারকারীবে আটক করেছে র‌্যাব-১৫।
র‌্যাব-১ব সূত্রে জানা যায়, টেকনাফ থানাধীন বাহারছড়া ইউনিয়ন উত্তর শীলখালী এলাকার মৃত সৈয়দ করিমের বাড়িতে কতিপয় চোরাকারবারী বিপুল পরিমাণ অকটেন মায়ানমারে পাচার করার উদ্দেশ্যে মজুদ করে রেখেছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ২৪ মার্চ ২০২৪ তারিখ অনুমান ০৪.৩০ ঘটিকার সময় বর্ণিত বাড়ীতে অভিযান পরিচালনা করতে গেলে র‌্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেয়ে কতিপয় লোকজন পালানোর চেষ্টাকালে তিন পাচারকারীকে আটক করে।  তাদের ০৫-০৬ জন সহযোগী কৌশলে পালিয়ে যায়। ধৃতদের স্বীকারোক্তি মতে ৫৭টি ড্রামে ৩,১৩৫ (তিন হাজার একশত পঁয়ত্রিশ) লিটার অকটেন উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ৪,০৭,৫৫০/- (চার লক্ষ সাত হাজার পাঁচশত পঞ্চাশ) টাকা।  ধৃতরা হলেন, উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের মৃত ঠান্ডা মিয়ার পুত্র আলী আহমদ (৩৮), মৃত মোজাহের মিয়ামোঃ নাজিম উল্লাহ (৩৭) ও মৃত সোনা আলীন পুত্র মাঃ হোছন (৪২)। জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতরা জানায় যে, পলাতক আসামীরা  সহ তাহারা বিভিন্ন পেট্রোল পাম্প হতে পরস্পর যোগসাজসে পাইকারি দামে ক্রয় করে থাকে। পরবর্তীতে অবৈধভাবে পাশ্ববর্তী দেশে চোরাইপথে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে মজুদ এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর গ্রেফতার এড়াতে রাতের গভীরে মজুদকৃত জ্বালানী তেল অকটেন চোরাচাইপথে পাশ্ববর্তী দেশে পাচার করছিল বলে জানায়। আটককৃতদের সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা রুজু করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানান র‌্যাব-১৫ পদস্থ কর্মকর্তা।