ঢাকারবিবার , ২১ এপ্রিল ২০২৪
  • অন্যান্য

শার্শার পশ্চিম কোটা গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে যুবককে এলোপাতাড়ি মারপিট 

আজকের বিনোদন
এপ্রিল ২১, ২০২৪ ২:৩৯ অপরাহ্ণ । ১৪৮ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আরিফুজ্জামান আরিফ :
যশোরের শার্শার পশ্চিম কোটা গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফারুক হোসেন(৩৫)নামে এক যুবককে প্রতিবেশী মান্নান গং এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করিয়া শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফোলা জখম করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এঘটনায় আহত ফারুক হোসেন এর বোন শার্শার ৭নং কায়বা ইউপির ৭,৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর রেহেনা বেগম বাদী হয়ে ১। আব্দুল মান্নান (৩০), পিতা-ইব্রাহিম মোল্যা, ২। গহর মোল্যা (৪৫), পিতা-মৃত মুছা মোল্যা, ৩। ইব্রাহিম মোল্যা (৫৩), পিতা-মৃত ইয়াকুব মোল্যা, ৪। ওহাব মোল্যা (৩৩), পিতা-ইব্রাহিম মোল্যা, সর্ব সাং-পশ্চিম কোটা, থানা-শার্শা, জেলা-যশোরদের নামে শার্শা থানায় একটি  লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
লিখিত অভিযোগে  তিনি উল্লেখ করেছেন যে, বিবাদীরা তার প্রতিবেশী।তিনি জানান, আমি আমার জমিতে পাঁকা বাড়ি নির্মান করিতেছি। সেখানে পোতার জন্য কিছু মাটির প্রয়োজন হওয়ায় ছোট ভাই ফারুক হোসেনকে দিয়ে  ছোট ট্রাক্টর দিয়ে কিছু মাটি এনে আমার মামা মৃত আলী হোসেন এর বাড়ীর সামনে রাস্তার পাশে রাখি এবং সেখান হতে মাটি নিয়ে আমার নির্মানাধীন বাড়ীর পোতায় দিতে থাকি,কিন্তু গত ২০ এপ্রিল শনিবার  বেলা অনুমান ১২টার  সময় প্রতিবেশী  বিবাদী আব্দুল মান্নান আমার ছেলে  ইকরামুল রানা (২৩) কে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও রাস্তার পাশে থাকা আমাদের মাটি এখনই সরিয়ে নিতে বলে। তখন আমার ভাই  ফারুক হোসেন (৩৫) আব্দুল মান্নান কে  বলে যে, কাকা খুব গরম পড়ছে, মাটি বিকালে অথবা কাল সকালে সরিয়ে ফেলবো। এই কথা বলা মাত্র আব্দুল মান্নান আমাদের বাড়ীর উপর এসে কাঠের তক্তা দিয়ে আমার ছেলেকে আঘাত করে নীলাফোলা জখম করে ও  ভাই কে মারধোর করার চেষ্টা করে। তখন আশপাশের লোকজন আব্দুল মান্নান কে ঠেকাইয়া দিলে সে দৌড়ে তার বাড়ীতে যায় এবং গহর মোল্যা (৪৫), ইব্রাহিম মোল্যা (৫৩) ও ওহাব মোল্যা ডেকে ও সঙ্গে নিয়ে হাতে দা, বাঁশের লাঠিসহ আমাদের বাড়ীর উপর আসিয়া আমার ছেলে ও ভাইয়ের উপর অতর্কিত হামলা করে। এসময় আব্দুল মান্নান তার ডান হাতে থাকা দা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে ভাই  ফারুক হোসেন এর মাথায় স্বজোরে কোপ মারে। কোপে ভাইয়ের মাথায় লাগিয়া রক্তাক্ত জখম প্রাপ্ত হয় এবং মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। তখন আমার ছেলে আব্দুল মান্নানকে ঠেকাইতে গেলে  ছেলেকেও দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করিবে মর্মে তাড়া করলে  ছেলে আমাদের ঘরের মধ্যে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এসময় আব্দুল মান্নান গং আমার ভাইকে এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করিয়া শরীরের বিভিন্নস্থানে নীলা ফোলা জখম করে।
ঘটনাস্থলে আমার ছেলে ও ভাইয়ের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে বিবাদী আব্দুল মান্নান গং সুযোগ পাইলে আমার ছেলে ও ভাইকে খুন করিয়া ফেলিবে মর্মে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে এলাকা ত্যাগ করে। পরে ঘটনাস্থল হতে আমার ভাইকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে আমার ছেলে ও গ্রামের লোকজন শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি করেছে।
এঘটনায় শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
এব্যাপারে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মনিরুজ্জামান পিপিএম বলেন,একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।