ঢাকামঙ্গলবার , ১৪ মে ২০২৪
আজকের সর্বশেষ সবখবর

কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে “শিউলি রানী”।

আজকের বিনোদন
মে ১৪, ২০২৪ ৪:০২ পূর্বাহ্ণ । ৩১ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

ওসমান গনি, লালমনিরহাটঃ
তরুণরাই গড়বে আগামীর স্মার্ট বাংলাদেশ’ এই স্লোগানকে  হৃদয়ে ধারন করে আসন্ন কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন হাঁস প্রতীকের প্রার্থী শ্রীমতী শিউলী রানী।
 জমজমাট প্রচার-প্রচারনায় কালীগঞ্জ উপজেলার ভোটারদের মুখে মুখে এখন শিউলী রানীর নাম।
ইতিপূর্বে সর্বসাধারনগণ তাদের কাঙ্খিত সেবা না পাওয়ায় সাধারন ভোটাররা পছন্দের তালিকায় প্রথম স্থান দিয়েছে বলে মনে করেন শিউলি রানী।
 শিউলী রানী নির্বাচিত হলে কালীগঞ্জ উপজেলাবাসীর কল্যাণে নিজের সর্বস্ব দিয়ে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন এবং  সরকার থেকে প্রাপ্ত সকল সুবিধা
পৌঁছে দিতে চান কালীগঞ্জ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের দোর গোড়ায়।
শিউলি রানী বলেন,”মানুষ এখন পরিবর্তন চায়,যারা  আমার পক্ষে প্রচারণায় নেমেছে তারা সবাই আমার শুভাকাঙ্ক্ষী,কোন বিনিময়ে নয়, তারা আমাকে ভালোবেসে ও  স্বপ্রণোদিত হয়েই প্রচার কাজ করছে।
 আমি নির্বাচিত হলে আমার দেওয়া প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন ঘটিয়ে সর্বদা সুখে দুঃখে ভোটারদের পাশে থাকবো। এলাকার আগ্রহী নারীদেরকে বিভিন্ন প্রশিক্ষণের আওতায় এনে সামাজিক সচেতনতা বৃদ্ধি ও সমাজের গরিব, দুস্থ, অসহায়, নিপীড়িত মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা অব্যাহত রাখবো।সমাজ থেকে মাদক নির্মুলে এলাকার যুব সমাজকে সাথে নিয়ে মাদকের ভয়াবহতা প্রচার, কুফল বর্ননাসহ বিনোদন মুলক অনুষ্ঠান আয়োজনের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।সর্বোপরি  জনগণের সেবক হয়ে সরকারি সকল ধরনের সহায়তা একশত ভাগ নিশ্চিত করে কালীগঞ্জ উপজেলাকে একটি স্মার্ট মডেল উপজেলা হিসেবে রুপান্তরিত করতে সচেষ্ট থাকবো।
কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নেে  সাধারণ ভোটাররা জানান, কালীগঞ্জ উপজেলায়  প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নেই শিউলী আপা জনপ্রিয়তার দিক থেকে এ মুহূর্তে বেশ এগিয়ে রয়েছেন, এবং তিনি  সাধারণ ভোটারদের মনে জায়গা করে নিতে সক্ষম হয়েছেন,এছাড়াও  শিক্ষা দীক্ষা ও পারিবারিক মর্যাদায় অন্যদের থেকে এগিয়ে রয়েছেন তিনি।
শিউলী রানী ছাত্রজীবন থেকেই অসহায় সাধারন মানুষের জন্য কাজ করে আসছেন। সবসময়ই অসহায় ও দুঃস্থ মানুষদের পাশে দাড়ানোর চেষ্টা করেন।শিউলি রানীর স্বামী ভবদীশ রায় ও সবসময়ই মানুষের কল্যান চিন্তা করেন, বিভিন্ন কারনে তার পক্ষে নির্বাচন করা সম্ভব  না হলেও তার স্ত্রীকে নির্বাচনে এনে জনপ্রতিনিধি হয়ে হয়ে বড় পরিসরে মানবসেবা করার স্বপ্ন দেখছেন।
শিউলি রানী  শিক্ষিত ও আদর্শ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা শিয়ালখোওয়া স্কুলের সহকারি শিক্ষক ছিলেন,তার এক ভাই সুভাষ রায় যিনি কালীগঞ্জের উত্তর বাংলা কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক, আরেক ভাই মিঠুন রায় চলবলা ইউপি সদস্য এবং শিউলি রানী এখন আদর্শ পরিবারের পুত্রবধূ।তার স্বামী ভবদীশ রায় আশা এনজিওতে ম্যানেজার পদে কর্মরত আছেন। ভবদীশের বড়ভাই ধনঞ্জয় বর্মন অবসর প্রাপ্ত টিটিই অন্য ভাইয়েরা শচীন্দ্র নাথ প্রধান শিক্ষক, জগদীশ রায় কলেজের অধ্যক্ষ।
ইতিমধ্যেই উপজেলার ঘরে ঘরে তার জনপ্রিয়তার রব উঠেছে। উপজেলার ভোটাররা স্বাদরে গ্রহণ করেছে তাকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রতিনিয়তই তার কর্মকান্ড সাধারণ মানুষসহ সচেতন মানুষদের নজর কাড়ছে।
 সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন শিউলি রানী।