ঢাকাবুধবার , ২২ মে ২০২৪
  • অন্যান্য

সংসার খরচের অতিরিক্ত অর্থ চাওয়ায় স্ত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা

আজকের বিনোদন
মে ২২, ২০২৪ ৬:১১ অপরাহ্ণ । ৪৭ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

কালিগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি :
গাজীপুরের কালীগঞ্জে সাংসারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে পেট্রোল ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় স্বামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১।
বুধবার (২২ মে) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন র‌্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মাহফুজুর রহমান জানান, মঙ্গলবার (২১ মে) সন্ধ্যা ৬টায় গাজীপুর মহানগরের বাসন থানার নাওজোড় থেকে এলাকা থেকে মিজানুর রহমান সুমন (৩১) কে গ্রেফতার করা হয়।
এই ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের হয় মামলা নং (২৫)।
গ্রেফতার হওয়া মিজানুর রহমান সুমন (৩১) কুমিল্লার দেবিদ্বারের ছোট শালঘর এলাকার মফিজুল ইসলামের ছেলে। সে প্রথম স্ত্রী শিমু, দেড় বছরের মেয়ে এবং মাকে নিয়ে রাজধানীর তুরাগ থানার রানাভোলা এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতো। সে পেশায় একজন ট্যাক্সিচালক।
অপরদিকে নিহত বিলকিস (২৮) ফরিদপুর চরভদ্রাসনের গফুর মৃধা ঢাঙ্গি এলাকার আব্দুল হাকিম মোল্লার মেয়ে। সে ঘাতক মিজানুর রহমান সুমনের দ্বিতীয় স্ত্রী। তারা তুরাগ থানার রানাভোলা থেকে আনুমানিক দুই কিলোমিটার দূরে নয়াপাড়া এলাকায় বাসা ভাড়া করে বসবাস করতো।
র‌্যাব কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান বলেন, প্রায় দুই বছর আগে অভিভাবক এবং প্রথম স্ত্রীকে না জানিয়ে বিলকিসকে বিয়ে করেন সুমন। দুই সংসার চালাতে গিয়ে কিছুটা আর্থিক টানা পরনে পড়েন সুমন। এইদিকে দ্বিতীয় স্ত্রী বিলকিস সংসার চালাতে অতিরিক্ত অর্থ দাবি করে প্রায়ই ঝগড়াঝাটি করত। এই ঝগড়াঝাটিকে কেন্দ্র করে বিলকিসকে হত্যার পরিকল্পনা করেন সুমন।
তিনি আরো বলেন,  ‘গত ১৯ মে দুপুরের পর হত্যার উদ্দেশ্যে বিলকিসকে নিয়ে ঘুরতে বের হয় সুমন। পথে কিছুক্ষণ পরপর চা পানের ছলে নিরব জায়গা খুঁজতে থাকে। সারাদিন ঘুরে বিকাল ৪টার পর গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার পূর্বাচল ২৪নং সেক্টরের নিরিবিলি এলাকায় জঙ্গলে নিয়ে যায়। সেখানে গাড়ি থামিয়ে স্ত্রীকে ভেতরে বসিয়ে রেখে সুমন গাড়ি থেকে নেমে গাড়ি স্টার্ট অবস্থায় পাইপ দিয়ে পেট্রোল বের করে বোতলে ভরে। কিছুক্ষণ পর বিলকিস গাড়ি থেকে নামলে সুমন বোতলে রাখা পেট্রোল বিলকিসের গায়ে ছিটিয়ে দেয় এবং ম্যাচের কাঠি জ্বালিয়ে গায়ে ছুড়ে মারে। বিলকিস গায়ে আগুন লাগলে বাঁচার জন্য চিৎকার শুরু করেন। তখন পাষণ্ড স্বামী হত্যাকারী সুমন গাড়ি নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। বিলকিসের ডাক-চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে একটি ড্রেন থেকে উদ্ধার করে প্রথমে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি হলে তাকে শেখ হাসিনা বার্ন হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন সোমবার (২০ মে) সকাল ৯টায় বিলকিস মারা যান। ঘটনার পর থেকে ঘাতক স্বামী সুমন আত্মগোপনে চলে যান। পরে র‌্যাব-১ আসামি সুমনকে গ্রেফতারে অভিযান চালায় এবং ছায়া তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। পরে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে আসামি পাষণ্ড স্বামী সুমনকে গাজীপুরের বাসন থানার নাওজোড় এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।’
এ বিষয়ে কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাহতাব উদ্দিন বলেন, কালিগঞ্জের পূর্বাচলে ২৪ নং সেক্টরে হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় র‌্যাব-১ একজনকে গ্রেফতার করে কালিগঞ্জ থানায় সোপর্দ করে। আগামীকাল সকালে তাকে জেলা আদালতে প্রেরণ করা হবে।