ঢাকাবুধবার , ১৩ মার্চ ২০২৪
  • অন্যান্য

চাঁদা তুলতে সাংবাদিকদের সহায়তা চেয়ে সংবাদ সন্মেলন

আজকের বিনোদন
মার্চ ১৩, ২০২৪ ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ । ১৫৪ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আশিকুর রহমান :-

নরসিংদী শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে অটোরিকশা, বিভাটেক, সিএনজি থেকে পূনরায় চাঁদা তুলতে সাংবাদিকদের সহায়তা চাইলেন মেসার্স সাহিরা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী ইব্রাহিম খলিল তুহিন।
বুধবার (১৩ মার্চ) সকালে শহরের ভেলানগর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন গ্র্যান্ড হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট এর ২য় তলায় এক সংবাদ সন্মেলনের মাধ্যমে তিনি এ সহায়তা চান। তিনি বলেন, আমি ১ম শ্রেনির ঠিকাদার ও ইজারাদার। নরসিংদী পৌরসভা থেকে ২০২২ থেকে ২০২৪ সাল পর্যন্ত পরপর দুইবার অটোরিকশা, বিভাটেক ও সিএনজি থেকে চাঁদা তোলার জন্য সাহিরা এন্টারপ্রাইজ নামক প্রতিষ্ঠানের প্যাডে ইজারা দেয় নরসিংদী পৌরসভা। সেই থেকে আমি পৌরসভার আইন অনুযায়ী একজন বৈধ ইজারাদার। দীর্ঘদিন ধরে কোনো রকম বাঁধা বিপত্তি ছাড়াই আমি চাঁদা তুলে আসছিলাম। কিন্তু গত ১০ জানুয়ারি কতিপয় রাজনৈতিক একব্যক্তি সমাবেশে প্রচারযন্ত্র ব্যবহার করে ইজারাকে অবৈধ বলে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করে বক্তব্য দিয়ে তা প্রতিহত করার ঘোষণা দেন। ওই কতিপয় নেতার বক্তব্যের সূত্রে গত ১৬ ফেব্রুয়ারী সাটিরপাড়া এলাকায় চাঁদা তোলার কাজে নিয়োজিত রাব্বি ও বাবুলকে ওই নেতার আজ্ঞাবাহ শাহিন ও জাহাঙ্গীর অতর্কিত হামলা করে এবং এখন থেকে তাদেরকে মোটা অংকের চাঁদা দিতে হবে বলে হুমকি প্রদান করেন। পরে আমি নরসিংদী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। বর্তমানে তাদের হুমকি-ধমকিতে আমার লোকজন অটোরিকশা, বিভাটেক, ভ্যান, সিএনজি থেকে বৈধ চাঁদা তুলতে বাঁধার সম্মুখীন হচ্ছেন। সাংবাদিকেরা সমাজের চোখ আর গণমাধ্যম সমাজের দর্পণ। আপনাদের মাধ্যমে জানাতে চাই, আমি নরসিংদী পৌরসভা কর্তৃক বৈধ ইজারাপ্রাপ্ত হয়ে কতিপয় ব্যক্তির ভুলবাল বক্তব্যের কারণে নিরাপদে চাঁদা তুলতে পারছিনা। নিরাপদে যাতে চাঁদা তুলতে পারি সেজন্য আপনাদের এবং সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করছি। এসময় উপস্থিত সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি।
সম্প্রীতি, নরসিংদী শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে পৌরসভার নামে সিএনজি, অটোরিকশা, ভ্যান, ট্রলি থেকে প্রতিদিন ১০-৬০ টাকা পর্যন্ত চাঁদা তোলা হতো। গত ৫ ফেব্রুয়ারী নরসিংদী জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে সর্বস্তরের জনসাধারণের ব্যানারে আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় এসব বন্ধের দাবি জানানো হয়। পরে কয়েকদিন ধরে বন্ধ রয়েছে চাঁদা তোলা।