ঢাকাসোমবার , ২৯ জানুয়ারি ২০২৪
  • অন্যান্য

নওগাঁর সংগ্রামী নারী মরিয়ম নারীদের এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরনা

আজকের বিনোদন
জানুয়ারি ২৯, ২০২৪ ৪:৪৬ অপরাহ্ণ । ৫২ জন
Link Copied!
দৈনিক আজকের বিনোদন সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শহিদুল ইসলাম জি এম মিঠন, নওগাঁ প্রতিনিধি:
নওগাঁর সংগ্রামী নারী মরিয়ম নারীদের এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরনা।
অতিথি পাখির কলরব, পানির কলকল শব্দ আর দূর থেকে ভেসে আসা মাঝির গানে নওগাঁ জেলা সদর উপজেলার হাঁসাইগাড়ী বিলে এক অন্যবদ্য প্রাকৃতিক মনোরম দৃশ্য ফোটে উঠেছে। নওগাঁ শহর থেকে ২৫কিলোমিটার দূরে প্রায় ৬ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে হাঁসাইগাড়ী বিল অবস্থিত। প্রতি নিয়তই বিভিন্ন স্থান থেকে বিলের সৌন্দর্য্য দেখতে দূর দূরান্ত থেকে মানুষের ঢল নামে। সেই হাসাই গাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের মেঠো পথের প্রাকৃতিক পরিবেশে বড় হয়ে উঠেছেন অদম্য নারী সংগ্রামী মরিয়ম আক্তারী। হাসাইগাড়ি গ্রামের শাহাদত হোসেন এর স্ত্রী মরিয়ম আক্তারী’র দু’ ছেলে। বড় ছেলে পড়ালেখা শেষ করে বেসরকারী একটি কোম্পানীতে চাকরী করছেন আর ছোট ছেলে ডিপ্লোমায় পড়ালেখা করছে।
নারী সংগ্রামী মরিয়ম আক্তারী জানান ছোট বেলা থেকেই দূরন্ত প্রকৃতির সঙ্গে গ্রামের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ঘুরে বেরিয়েছেন সব সময়। তিনি ভাই-বোনদের মধ্যে সবার ছোট। ছোট বেলা থেকেই পরোপকারী অন্যের কষ্ট দেখে নিজেকে ধরে রাখতে পারতেন না। চঞ্চল ছোট সেই মেয়েটি কে এখন সবাই গ্রামের এক সংগ্রামী নারী হিসেবে চেনে। পুরো পরিবারের সহযোগিতা নিয়ে তিনি গরীব-দুঃখিদের পাশে থেকে সব সময় নিজের সাধ্যমতো সহযোগিতা করে আসছেন। পিছিয়ে পড়া নারীদের সামনের দিকে এগিয়ে নিতে কাজ করে আসছেন বছরের পর বছর। নওগাঁ সদর উপজেলার হাসাইগাড়ি ইউপির অপরাজিতা সদস্য মরিয়ম অপরাজিতা প্রশিক্ষণ থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন এবং নিজেকে অধিদপ্তরের লাইভস্টক প্রভাইডর হিসেবে নিজ ইউনিয়নে গোবাদী পশু পালনে সহায়তা করছেন।
তিনি আরো জানান, ইতো মধ্যেই তিনি  প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের সরকারী সহায়তা উন্নত পশু পালনের জন্য ১৪০টি পরিবারে নূন্যতম ৩ হাজার ৪শ’ টাকা থেকে ২২ হাজার টাকা পর্যন্ত এক কালীন অনুদান প্রদান করেছেন। ৬শ’ ১০ টি পরিবারের কৃমিমুক্ত গোবাদি পশু পালনে কৃমির ঔষধ বিনামূলে বিতরন করেছেন এবং ৩শ’ জন কৃষকের নাম তালিকা ভুক্ত করেছেন যাদের আগামী এপ্রিল-২০২৪ থেকে উন্নত প্রযুক্তিতে গরু পালনের প্রশিক্ষণ প্রদাণ করবেন। তিনি প্রতিটি ওর্য়াডে নারীদের একটি করে টিম করে দিয়েছে প্রশিক্ষণের জন্য যাতে করে কোনো নারীই বেকার না থাকে। তিনি চেষ্টা করছেন গ্রামের মেয়েদের অর্থনৈতিক স্বাবলম্বী করতে। তিনি শুধু প্রণোদনায় নয় প্রতিটি ওয়ার্ডে সরকারী আইনী সহায়তা, বাল্যবিয়ে, মাদক, মহামারি করোনা ভাইরাস সচেতনতা বিষয়ক উঠান বৈঠক করে থাকেন। দূর-দূরান্তে প্রতিদিন পথ হেটে চলেছে নারীদের অধিকার আদায়ের জন্য।
মরিয়ম আক্তারীর স্বপ্ন সম-অধিকার আদায়ের সংগ্রামে এবারের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নওগাঁ সদর উপজেলা নির্বাচনে সাধারণ আসন থেকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্ব›দ্বীতা করবেন বলেও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। একটি সমতার সমাজ যেখানে, ব্যবধান থাকবে না নারী আর পুরুষের মাঝে, নারীদের কাজে সহায়তা করবে পুরুষ উভয়ে মিলে-মিশে গড়বে এমন এক সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন মরিয়ম আক্তারীর হৃদয়ে। তিনি মনে করেন, অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের সিঁড়ি। নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠা করতে হলে নারীকে অর্থনৈতিক সাবলম্বিতা অর্জন করতে হবে। অর্থনৈতিক স্বাধীনতা নারীকে স্বাধীন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তোলে।
নওগাঁ জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আবু তালেব জানান মরিয়ম সমাজের সকল নারীর জন্য একটি অনুপ্রেরণার বাতিঘর। তাকে দেখলে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সাহস মনে জন্ম নেয়। তাই জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের পক্ষ থেকে সব সময় মরিয়মকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করা হচ্ছে। আগামীতেও মরিয়মদের মতো এগিয়ে যাওয়া নারীদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদান অব্যাহত থাকবে।